স্বাস্থ্য

জেনে নিন ক্যান্সারের সাতটি লক্ষণ

চিকিৎসক ও তরুণ উদ্যোক্তা। বেসরকারী স্বাস্থ্যসেবা প্রতিষ্ঠানে কর্মরত।

ক্যান্সার বলতেই ভয়ে আঁৎকে উঠেন অনেকে। এখনো এই রোগের পরিপূর্ণ চিকিৎসা সহজলভ্য নয় এবং মৃত্যুর হার অনেক বেশি।এ কারনেই এই ভীতি। মূলত অবহেলা এবং সঠিক সময়ে চিকিৎসা না করানোর জন্যই ক্যান্সার রোগের জটিলতা দিন দিন বাড়ছে।

আমাদের দেশের বেশিরভাগ মানুষ স্বাস্থ্য সমস্যার বিষয়ে খুব একটা সচেতন নন। এর মধ্যে ক্যান্সারের লক্ষণগুলো খুব ধীরে এবং অজান্তেই বেড়ে উঠে বলে অনেকেই সঠিক সময়ে বুঝতে পারেন না। অথচ ক্যান্সারে আক্রান্ত হওয়ার শুরুর দিকেই যদি রোগ নির্ণয় করা যায় তবে পুরোপুরি সুস্থ হওয়াও সম্ভব। এ কারনে ক্যান্সারের প্রাথমিক লক্ষণগুলো জেনে নেয়া খুব জরুরি। তাতে একদিকে মৃত্যুর হার যেমন কমবে, তেমনি জটিলতাও এড়ানো সম্ভব হবে অনেকটাই।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ক্যান্সারজনিত জটিলতা ও মৃত্যুর হার কমিয়ে আনতে ক্যান্সারের সাতটি লক্ষণ ঘোষণা করেছে। এই সাতটি লক্ষণ দেখা দিলে অচিরেই চিকৎসকের পরামর্শ নিতে হবে। চলুন জেনে নেই ক্যান্সারের সাতটি লক্ষণ-

১) পায়খানা-প্রস্রাবের স্বাভাবিক নিয়মে পরিবর্তন ঘটা। অর্থাৎ দীর্ঘস্থায়ী ডায়রিয়া বা কোষ্ঠকাঠিন্য হওয়া। কিংবা পায়খানা-প্রস্রাবের নিয়মিত অভ্যাসের পরিবর্তন হওয়া।

আরো পড়ুন  পাইলসের ১০টি কারন ও লক্ষণসমূহ

২) শরীরের কোন আঁচিল বা তিলের আকার, আকৃতি, রং বা পুরুত্বের অস্বভাবিক পরিবর্তন।

৩) শরীরের কোন জায়গা থেকে অস্বাভাবিক রক্তক্ষরণ।

৪) ক্ষত বা ঘা শুকাতে আস্বাভাবিক দেরি হওয়া।

৫) স্তন, অণ্ডকোষ বা শরীরের অন্য কোন জায়গায় চাকার মত অনুভূত হওয়া।

৬) ঢোক গিলতে অসুবিধা হওয়া বা হজমজনিত সমস্যা দেখা দেওয়া।

৭) দীর্ঘস্থায়ী খুশখুশে কাশি, গলা ভেঙ্গে যাওয়া বা ভাঙ্গা কণ্ঠস্বর।

এছাড়া ক্যান্সারের কারনে শরীরের ওজন অস্বভাবিকভাবে কমে যেতে পারে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা তাদের তালিকায় এটা যোগ না করলেও আমাদের দেশে ক্যান্সার রোগীদের মধ্যে এই লক্ষণটিও দেখা যায়।