মা ও শিশু

মায়ের বুকের দুধ শিশুকে যে ১৫টি জটিল রোগ থেকে রক্ষা করে

বি.এস.সি (আনার্স, শেষ বর্ষ), নিউট্রিশন অ্যান্ড ফুড টেকনলজি বিভাগ, যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, যশোর।

আজকাল অনেক মা’ই বাচ্চাকে বুকের দুধ খাওয়াতে চান না। তার বদলে বাজারে যে কৌটার দুধ পাওয়া যায় তা খাওয়ান। অনেকে আবার বাচ্চাকে গরুর দুধ খাওয়ান। কিন্তু ১ বছরের কম বয়সী শিশুর জন্য কৌটা বা গরুর দুধ কখনই মায়ের দুধের বিকল্প হতে পারে না। কারন এগুলো কখনোই মানব শিশুর পুষ্টি চাহিদা পূরণ করতে পারে না। এছাড় মায়ের দুধে এমন কিছু উপাদান রয়েছে যা বাচ্চার মস্তিষ্ককে সুগঠিত করে, দৈহিক বৃদ্ধিকে ত্বরান্বিত করে এবং বাচ্চাকে বিভিন্ন জটিল রোগ থেকে রক্ষা করে। গবেষণায় দেখা গেছে, যেসব মায়েরা বাচ্চাদের বুকের দুধ খাওয়ান তাদের শিশুদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বেশি হয়। নিয়মিত বুকের দুধ খাওয়ালে বাচ্চাদের ১৫টি জটিল রোগ হওয়ার সম্ভাবনা একেবারে কমে যায়। চলুন সেই ১৫টি জটিল রোগের নাম জেনে নেই, মায়ের বুকের দুধ যেগুলোকে প্রতিহত করতে পারে-

 

১. চাইল্ডহুড ক্যান্সার বা শৈশবকালীন ক্যান্সার,

২. ঘন ঘন পাতলা পায়খানা হওয়া,

৩. কানে সংক্রমণ হওয়া। অর্থাৎ পুঁজ জমা ও ব্যথা হওয়া,

৪. ইনফেকশন জনিত জ্বর,

৫. জুভেনাইল ডায়াবেটিস,

৬. খাদ্যে বিষক্রিয়া বা বটুলিজম,

৭. খাদ্যনালীতে ক্ষত, আলসার বা প্রদাহ জনিত রোগ,

৮. গ্যাসট্রো-ইসোফেজিয়াল রিফ্লাস্ক রোগ,

৯. স্থূলতা বা চাইল্ডহুড ওবেসিটি,

১০. হঠাৎ কোন কারন ছাড়াই বাচ্চার মৃত্যু হওয়া বা সাডেন ইনফেন্ট ডেথ সিনড্রম (SIDS) রোগ,

১১. দাঁত ছিদ্র হওয়া বা দাঁতে পোকা ধরা,

১২. আলার্জিক রিঅ্যাকশন হওয়া,

১৩. কোষ্ঠকাঠিন্য,

১৪. শ্বাসনালী বা প্রস্রাবের নালীতে সংক্রমণ বা ইনফেকশন,

১৫. মেনিনজাইটিস।