লাইফস্টাইল

হেঁচকি থেকে মুক্তির ৫টি উপায়

এম.বি.বি.এস, সি.সি.ডি। চিকিৎসক, শিক্ষক ও স্বাস্থ্য বিষয়ক লেখক। ফিচার লেখক, প্রথম আলো।

সময়ে-অসময়ে হেঁচকি ওঠা খুবই বিরক্তিকর বিষয়। দ্রুত খাবার গিলে খাওয়া, খুব বেশি পরিমাণে ভরপেট খাওয়া, খাবারে তারতম্য, খাবারের সঙ্গে মুখে বাতাসের প্রবেশ, ধূমপান ও কোমল পানীয় গ্রহণ, খাদ্যনালীর সমস্যা ইত্যাদি কারণে হেঁচকি উঠতে পারে। মানবদেহের বুক ও পেটের মাঝখানে ডায়াফ্রাম নামে বিশেষ পর্দা থাকে। এতে কোন সমস্যা হলেও হেঁচকি উঠতে পারে। এছাড়া মনস্তাত্ত্বিক কারনেও হেঁচকি উঠতে পারে। অনেক সময় স্ট্রোকের পরে এবং মস্তিষ্ক ও যকৃতের কিছু রোগের কারণে হেঁচকি উঠতে পারে। গবেষণায় প্রমাণ মিলেছে, ঘুমের ওষুধ ও দুশ্চিন্তা কমানোর ওষুধের কারণেও হেঁচকি হতে পারে।

হেঁচকি থেকে মুক্তির উপায়:

১. দম বন্ধ রেখে একবারে এক গ্লাস পানি পান করতে পারেন।

২. নাক বন্ধ রেখে নিশ্বাস ছাড়ার চেষ্টা করুন।

৩. অনেক সময় গলায় আঙুল দিয়ে বমি করার চেষ্টা করলে উপকার পাওয়া যায়।

৪. এক চামচ চিনি বা মধু মুখে নিয়ে চুষে খেলে কাজ হতে পারে।

৫. হঠাৎ করে কেউ চমকে দিলে বা মনোযোগ অন্য দিকে সরিয়ে দিলে হেঁচকি বন্ধ হয়ে যায়।

হেঁচকি নিয়ে ভয়ের কিছু নেই। তবে তিন ঘণ্টার মধ্যে হেঁচকি না থামলে এবং হেঁচকির সঙ্গে জ্বর, কাশি, তীব্র পেটব্যথা ও মাথাব্যথা থাকলে চিকিৎসকের শরণাপন্ন হওয়া উচিত।