লাইফস্টাইল

হার্ট বা হৃদপিণ্ড সুস্থ রাখতে ৭টি করণীয়

সহকারী অধ্যাপক, কার্ডিয়াক সার্জারি, জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউট ও হাসপাতাল (এনআইসিভিডি), শেরে বাংলা নগর, ঢাকা।

১. ক্যারটিনয়েড ও ভিটামিন-সি যুক্ত খাবার খান: ক্যারটিনয়েড ও ভিটামিন-সি যুক্ত খাবার হার্টকে সুস্থ রাখে। এই খাবারগুলোতে শক্তিশালী অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট থাকে, যা হার্টের জন্য খুবই উপকারী। ক্যারটিনয়েড ও ভিটামিন-সি যুক্ত ফলমূল হচ্ছে: কমলালেবু, পেঁপে, আপেল, কলা, স্ট্রবেরি, আঙ্গুর ইত্যাদি।

নিয়মিত ফলমূল ও সবুজ শাক-সবজির খেলে হার্ট ভালো থাকে।

ছবি: নিয়মিত ফলমূল ও সবুজ শাক-সবজি খেলে হার্ট ভালো থাকে।

২. নিয়মিত ফলমূল ও সবুজ শাক-সবজি খান: নিয়মিত ফলমূল ও সবুজ শাক-সবজি খেলে হার্ট ভালো থাকে। বিশেষ করে, তাজা ফলের রস হার্টের জন্য খুবই ভালো। সবুজ শাক-সবজির মধ্যে পালংশাক, লাউ, কুমড়া, গাজর, বিট, বাঁধাকপি, ভুট্টা, লাল আলু ইত্যাদি হার্টের জন্য বেশ উপকারী। এর পাশাপাশি প্রতিদিন প্রয়োজনমত সালাদ ও প্রচুর পরিমাণে পানি খাওয়া প্রয়োজন।

৩. খাবার তালিকায় মাছ যোগ করুন: ওমেগা-৩ ফ্যাটি এসিড সমৃদ্ধ খাবার খেলে হার্টের রোগের সম্ভাবনা অনেকটাই কমে আসে। মাছে প্রচুর পরিমাণে ওমেগা-৩ ফ্যাটি এসিড পাওয়া যায়। ওমেগা-৩ ফ্যাটি এসিড সমৃদ্ধ মাছ হার্টের অনিয়মিত স্পন্দন অর্থাৎ হঠাৎ ওঠা-নামাকে কমায়। পাশাপাশি এই এসিড রক্তে কোলেস্টেরলের মাত্রা কমাতে ও রক্তনালীতে কোলেস্টেরল জমাট বাঁধা প্রতিরোধে সাহায্য করে।

৪. রান্নায় আদা, রসুন ও হলুদ ব্যবহার করুন: রান্নার সময় মসলা হিসেবে আদা, রসুন ও হলুদ ব্যবহার করুন। এগুলো রক্তে কোলেস্টেরলের মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখতে সাহায্য করে।

আরো পড়ুন  ঘাড় ব্যথা প্রতিরোধে ১০টি পরামর্শ

৫. ডায়েট চার্ট পরিবর্তন করুন: হার্ট ভালো রাখার জন্য আপনার ডায়েট চার্ট পরিবর্তন করুন। প্রতিদিন ডায়েটে তিন ধরনের খাবার রাখার চেষ্টা করুন:

ক. সিদ্ধ, কাঁচা বা অল্প তেলযুক্ত সবজি,
খ. গোটা ও দানাদার শস্যযুক্ত খাবার,
গ. মাছ বা ডিম জাতীয় খাবার।

৬. রান্নায় সঠিক তেলের ব্যবহার করুন: হার্টের সুস্থতায় রান্নার তেল নির্বাচনের সময়ও সতর্ক হওয়া প্রয়োজন। রান্নায় অলিভ ওয়েল বা বাদাম তেল ব্যবহার করা ভালো। ভেজিটেবল ওয়েলও হার্টের জন্য ভালো। সয়াবিন বা সরিষার তেল রান্নায় বেশি ব্যবহার করা উচিত নয়।

ছবি: নিয়মিত শরীরচর্চা হার্ট বা হৃদপিণ্ডকে সুস্থ রাখে।

ছবি: নিয়মিত শরীরচর্চা হার্ট বা হৃদপিণ্ডকে সুস্থ রাখে।

৭. সুস্থ হার্টের জন্য নিয়মিত শরীরচর্চা করুন:  নিয়মিত শরীরচর্চা হার্ট বা হৃদপিণ্ডকে সুস্থ রাখে। প্রতিদিন নিয়ম মেনে শরীরচর্চা করলে শরীরে অক্সিজেনের প্রবাহ স্বাভাবিক থাকে, ফলে হার্ট ভালো থাকে। এছাড়া শরীরচর্চা রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখতে সাহায্য করে এবং টেনশন ও ডিপ্রেশন কমায়। গবেষণায় দেখা গেছে, ব্যায়াম করলে দেহের রক্ত প্রবাহ সচল ও স্বাভাবিক থাকে। শরীরচর্চার জন্য নিচের কাজগুলো করতে পারেন:

ক. প্রতিদিন নিয়ম করে আধা ঘণ্টা হাঁটাহাঁটি করুন।
খ. অফিসে লিফটের বদলে সিঁড়ি ব্যবহার করুন।
গ. ঘরের ছোটখাটো কাজগুলো নিজেই করার চেষ্টা করুন।