স্ট্রোকের লক্ষণগুলো

জেনে নিন স্ট্রোকের লক্ষণগুলো

শুরু করুন

ভূমিকা

স্ট্রোক আমাদের খুব পরিচিত স্বাস্থ্য সমস্যা। আধুনিক জীবন-যাপন ও অনিয়ন্ত্রিত খ্যাদ্যাভ্যাসের কারনে দিনকেদিন এর প্রবণতা বাড়ছে। সাধারণত মস্তিষ্কে রক্ত সরবরাহের ক্ষেত্রে কোন ধরনের বাধার সৃষ্টি হলে স্ট্রোক হয়। দ্রুত চিকিৎসার ব্যবস্থা করলে স্ট্রোকজনিত মৃত্যুর ঝুঁকি যেমন কমে, তেমনি স্বভাবিক কর্মক্ষমতা ফিরিয়ে আনা ও পুনরায় স্ট্রোকের ঝুঁকি এড়ানোও সম্ভব হয়। এ কারনে স্ট্রোকের লক্ষণগুলো বুঝতে পারাটা খুব জরুরি।

মুখ বেঁকে যাওয়া

ব্রেইন স্ট্রোকের প্রধান লক্ষণ হচ্ছে মুখ বেঁকে যাওয়া। রোগীর মুখের এক পাশ বেঁকে গেলে বা অসাড়তা অনুভব করলে তাকে হাসতে বলুন। যদি রোগী হাসতে না পারে তবে স্ট্রোক হয়েছে বলে ধরে নিতে পারেন। এক্ষেত্রে তাকে দ্রুত হাসাপাতালে নেয়ার ব্যবস্থা করুন।

হাত ও পা অবশ বা দুর্বল অনুভূত হওয়া

স্ট্রোক হলে এক পাশের হাত অথবা পা কিংবা উভয় পাশের হাত ও পা অবশ বা দুর্বল অনুভূত হতে পারে। এক্ষেত্রে রোগীকে হাত অথবা পা উপরের দিকে তুলতে বলুন। স্ট্রোকের রোগী হলে হাত বা পা উপরে উঠাতে পারবে না।

কথা বলতে অসুবিধা হওয়া

স্ট্রোকের রোগীকে প্রশ্ন করলে সে ঠিকমত উত্তর দিতে পারবে না। রোগীকে একই প্রশ্ন বারবার করলে এটা বোঝা যাবে। দেখা যাবে, প্রশ্নের উত্তরে রোগী ঠিকমত কথা বলতে পারছে না।

শরীরের ভারসাম্য ঠিক না থাকা

স্ট্রোকের রোগীর শরীরের ভারসাম্য ঠিক থাকে না। হাঁটার সময় চলাচলে সমন্বয়হীনতা দেখা যায়। রোগীকে হাঁটতে বললে দেখা যাবে সে ভারসাম্য হারিয়ে ফেলছে। তবে এ সময় রোগীর পাশে অবশ্যই কাউকে থাকতে হবে। তা না হলে রোগী ভারসাম্য হারিয়ে পড়ে যেত পারে।

মাথায় প্রচণ্ড ব্যথা অনুভূত হওয়া

স্ট্রোকের রোগীর কোন কারন ছাড়াই মাথায় প্রচণ্ড ব্যথা অনুভূত হতে পারে। সাধারণত মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণজনিত স্ট্রোক হলে এ ধরনের তীব্র মাথাব্যথা অনুভূত হয়।